মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

উপজেলা পটভূমি

প্রাচীন নিদর্শন ভাটেরার তাম্র ফলকদ্বয়ের কুলাউড়া নামের কোন উল্লেখ নেই। তবে প্রাচীন একটি শ্লোকাংশে ‘‘লংলাইস্য কুলাউড়া, ইটাস্য নন্দিউড়া’’ কথাটির উল্লেখ রয়েছে। এ থেকে বোঝা যায়, পরগণা ভিত্তিক শাসনামলে কুলাউড়া নামটি ছিল এবং ইটা পরগণা নন্দিউড়ার ন্যায়, লংলা পরগণার কুলাউড়া একটি প্রসিদ্ধ স্থান। শাহা হেলিম উদ্দিন কোরেশী নামক গ্রন্থ থেকে জানা যায় মনসুর গ্রামের প্রখ্যাত দেওয়ান মামন্দ মনসুরের পিতামহ মামন্দ মনোহরের ভ্রাতা মামন্তদ কুলাঅর কুমার থাকাবস্থায় মৃত্যু বরণ করেন। তাঁর মৃত্যুর পর মামন্দ মনোহর ভ্রাতার স্মৃতি রক্ষার্থে নিজ জমিদারির পূর্বাংশে একটি বাজার প্রতিষ্ঠা করে নাম রাখেন কুলঅরার বাজার’’। কালক্রমে ‍‍"কুলঅরার বাজার থেকে “কুলাউড়া’’ নামকরণ করা হয়েছে।

এছাড়া কুলাউড়া নামকরণের জনশ্রুতি রয়েছে।

 

ক) বহুআগে বর্তমান কুলাউড়া থাাির উত্তর পাশ্বের রেল চৌমুহনীরস্থলের বটগাছের নিছে প্রতিদিন সকাল বিকাল বাজার বসত। একদিন দুপুর বেলা কোন এক কোলা বিক্রেতার কোলা কুড়োলা বা ঘূর্ণি বাতাসের মধ্যে পড়ে উড়ে উড়ে বিভিন্ন স্থানে গিয়ে পড়ছিল। ঘূর্ণি বাতাসে কুলা উড়েছিল বলে স্থানটির নাম কুলাউড়ার বাজার থেকে একসময় কুলাউড়া হয়েছে ।

খ) অতীতে কুলা ও উড়ার জন্য এই এলাকা প্রসিদ্ধ ছিল বলে স্থানটির নাম কুলাউড়া হয়েছিল।

গ) বর্তমানে  রেল চৌমুহনীরস্থলের তৎকালীন  বটগাছের নিচে হিন্ধুরা দেবতার উদ্দেশ্য  মানত করা দ্রব্য এনে রাখত।  কাকরুপি দেবতারা উড়ে উড়ে তা খেত বলে ঐ স্থানের নাম কাকউড়া থেকে একসময় কুলাউড়া হয়েছে।

ঘ) এককালে কুলাউড়ার পাহাড়ীয়া অঞ্চলে কুকী জাতীয় লোকের বাস ছিল। তাই ককীদের ভাষা  থেকে কুলাউড়া নাম আসতে পারে বলে অনেকে ধারনা করেন।